One Stop Digital Education Portal
কম্পিউটারের মাদারবোর্ড
Price: Free Course Post By: Tanvir সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: 05 Sunday 2020

মাদারবোর্ডে উল্লেখ যোগ্য বিষয় গুলো হচ্ছে মেগাবাইট, মেইন বোর্ড , মোবো(mobo) , মোবিডি(mobd) , ব্যাকপ্লেন বোর্ড, বেস বোর্ড , প্রধান সার্কিট বোর্ড , প্ল্যানার বোর্ড, সিস্টেম বোর্ড , অথবা অ্যাপল কম্পিউটারে লজিক বোর্ড। মাদারবোর্ড হচ্ছে একটি মুদ্রিত সার্কিট বোর্ড যা একটি কম্পিউটারের ভিত্তি ও যা সি পি ইউ(CPU) , র্যাম (RAM)- এবং সমস্ত অন্যান্য কম্পিউটার হার্ডওয়্যার উপাদানের মধ্যে একে অপরের সাথে যোগাযোগের মাধ্যম হিসাবে কাজ করে। নীচে ASUS P5AD2 -E মাদারবোর্ড ও মাদারবোর্ডের প্রধাণ অংশের প্রতিটির কিছু মৌলিক ব্যাখ্যা ও একটি গ্রাফিক্স দেখানো হল:
Mother-Board-001

মাদারবোর্ড উপাদান
নীচে বিষদভাবে মাদারবোর্ডের উপাদান প্রতিটি বর্ণনা দেওয়া হল যা উপরের চিত্রের বাম কোণ থেকে ঘড়ির কাঁটার ক্রম অনুসারে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। উপরে তালিকাভুক্ত বা অন্যান্য মাদারবোর্ডে না পাওয়া সামগ্রী পরবর্তীতে তালিকাভুক্ত করা হবে।

এক্সপানশন স্লটঃ
প্রথমে উল্লেখ করা যেতে পারে বাস স্লটে বা এক্সপানশন পোর্টে কথা। একটি এক্সপানশন স্লট হচ্ছে কম্পিউটারের মাদারবোর্ড বা উত্থানকারী বোর্ডের ভিতরে অবস্থিত একটি স্লট, যার মাধ্যমে অতিরিক্ত বোর্ড মাদারবোর্ডের সাথে সংযুক্ত করা সম্ভব হবে। উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে, যদি আপনি কম্পিউটারে একটি নতুন ভিডিও কার্ড ইনস্টল করতে চান, তবে আপনাকে একটি ভিডিও এক্সপানশন কার্ড কিনতে হবে এবং সামঞ্জস্যপূর্ণ এক্সপানশন স্লট মধ্যে সেই কার্ড ইনস্টল করতে হবে। নীচে কিছু এক্সপানশন স্লটের নাম দেওয়া হল যা সাধারণত আইবিএম ও অন্যান্য ব্র্যান্ডের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ কম্পিউটারে পাওয়া যায়-
কম্পিউটার এক্সপানশন স্লট
• এ জি পি কার্ড (AGP) – ভিডিও কার্ড
• এ এম আর (AMR) – মডেম , সাউন্ড কার্ড
• সি এন আর (CNR) – মডেম , নেটওয়ার্ক কার্ড, সাউন্ড কার্ড
• ই আই এস এ (EISA) – এস সি এস আই (SCSI) , নেটওয়ার্ক কার্ড , ভিডিও কার্ড
• আই এস এ (ISA) – নেটওয়ার্ক কার্ড, সাউন্ড কার্ড , ভিডিও কার্ড
• পি সি আই (PCI) – নেটওয়ার্ক কার্ড, এস সি এস আই (SCSI) , সাউন্ড কার্ড , ভিডিও কার্ড
• পি সি আই ই (PCIe) – ভিডিও কার্ড
• ভি ই এস এ (VESA) – ভিডিও কার্ড
উপরে এক্সপানশন কার্ড স্লট গুলোর অনেক গুলোই এখন অপ্রচলিত হয়, তবে আপনি আজকের কম্পিউটারে শুধুমাত্র এ জি পি , পি সি আই , এবং পি সি আই ই (PCIe) কার্ড গুলোর দেখাই বেশি পাবেন।

তড়িৎ ধারকঃ

Mother-Board-2

একটি ক্যাপাসিটর হচ্ছে আমন একটি হার্ডওয়্যার উপাদান যা দুই বা ততধিক পরিবাহী প্লেটের পরতে পরতে একটি পাতলা অন্তরক দিয়ে তৈরি একটি কম্পোনেন্ট যা একটি সিরামিক ও প্লাস্টিকের কন্টেইনারে আবৃত থাকে। ক্যাপাসিটর যখন ডিরেক্ট কারেন্ট ( ডিসি ) পায়; তখন একটি পজিটিভ চার্জ, প্লেট গুলোর মধ্যে যেকোনো একটি প্লেটের (বা প্লেট সেট ) উপর তৈরী হয় যখন অন্য গুলোর উপর একটি নেগেটিভ চার্জ তৈরী হয়। এই চার্জ, যা কম্পিউটার ক্যাপাসিটরে মাইক্র ফ্যারাডে হিসাবে মাপাহয় মাপা হয়, তা ততোক্ষণ পর্যন্ত ক্যাপাসিটর থাকে যতক্ষণ পর্যন্ত না ক্যাপাসিটরের চার্জ নির্গত না হয়। উপরের ছবিতে দেখলে কম্পিউটার ক্যাপাসিটর সম্পর্কে একটা ধারনা পাওয়া যাবে।

আরা এক প্রকার কম্পিউটার ক্যাপাসিটর আছে যা ইলেক্ট্রোলাইটিক ক্যাপাসিটর নামে পরিচিত, যা উচ্চধারনক্ষমতা বিশিষ্ট কিন্তু ছোট আকারের। নিচে স্পষ্ট ধারনা পাওয়ার জন্য একটি ছবি দেওয়া হল

Mother-Board-3

সকেটঃ

Mother-Board-004

একটি প্রসেসরের ক্ষেত্রে; একটি সি পি ইউ (CPU)-র সকেট বা প্রসেসর সকেট, একটি কম্পিউটার প্রসেসর ও মাদারবোর্ডের সাথে সম্পর্ক সংযুক্তকারী হিসাবে কাজ করে দেয়। . উদাহরণস্বরূপ আমরা বলতে পারি সকেট 370 – এর কথা যা উপরের ছবি তে দেখানো হয়েছে । এখনও বেশির ভাগ কম্পিউটারে স্লট প্রসেসর ব্যবহার করা হয়, বর্তমানে এবং অতীতের বেশিরভাগ কম্পিউটারে স্লট প্রসেসর ব্যবহার করা হয়।

মেমরি স্লটঃ

একটি মেমরি স্লট,মেমোরি সকেট, বা র্যাম স্লট, কম্পিউটার মেমরি কম্পিউটারে এ প্রবেশ করানো সম্ভব হবে কি না তা মাদারবোর্ডের উপর নির্ভর করে। সেখানে সাধারণত 2 থেকে 4 টি মেমরি স্লট করা থাকে যা নির্ধারণ করে কোন ধরনের র্যাম কম্পিউটারে ব্যবহার হবে। সব থেকে পরিচিত র্যাম এর মধ্যে বিভিন্ন ধরণ এবং গতির কথা বিবেচনা করে ডেক্সটপ এর জন্য SDRAM আর ল্যাপটপের জন্য DDR. ব্যবহার করা হয়। নিচের ছবিতে একটা উদাহরণ দেয়া আছে যে কিভাবে একটি ডেক্সটপ কম্পিউটারে মেমরি স্লট ব্যবহার হয়। এই ছবিতে, তিনটি মেমোরি স্টিক এর জন্য তিনটি খোলা স্লট দেয়া আছে।

Mother-Board-5

একটি নতুন কম্পিউটার বা মাদারবোর্ড কেনার সময়, খুব ভালো ভাবে খেয়াল রাখতে হয় মেমরি স্লট ব্যবহার করা যায় কিনা, এর মাধ্যমে আপনি নিশ্চিত হতে পারবেন কোন ধরনের র্যরম আপনার কম্পিউতারের জন্য কিনতে হবে। এটাও উল্লেখযোগ্য যে কতগুলো মেমরি স্লট আছে আপনার কম্পিউটারে। এটা খুবই সাধারণ যে অনেক কম্পিউটারে সব মেমরি স্লট দখল অবস্থায় থাকে তার অর্থ হচ্ছে আপনি যদি আপনার কম্পিউটারকে আপগ্রেড করতে চান তাহলে কিছু অথবা সব ইন্সটল কৃত মেমরি গুলকে সর্বপ্রথম অপসারণ করতে হবে।

সিএমওএসঃ

Mother-Board-6

সিএমওএস বলতে কখনও বোঝায় রিয়েল –টাইম clock, কখনো Non Volatile RAM(NVRAM) or সিএমওএস RAM, সিএমওএসকে সংক্ষেপে বলে complementary metal oxide semiconductor .সিএমওএস হচ্ছে এক ধরনের বোর্ড অর্ধপরিবাহী চিপ যা কাজ করে কম্পিউটারের ভিতরে অবস্থিত সিএমওএস ব্যাটারির মাধ্যমে যা মূলত ধারণ করে তথ্য , সময়, তারিখ এবং হার্ডওয়ার পরিচালনকারি system আপনার কম্পিউটারের জন্য। উপরের ডান পাশের ছবিতে দেয়া আছে সব থেকে পরিচিত সিএমওএস কয়েন কোষ ব্যাটারি যা আপনার কম্পিউটারে সিএমওএস ব্যাটারি কে কার্যকর রাখে ।

একটি মটোরোলা 146818 চিপ প্রথম দিকে আইবিএম কম্পিউটার ব্যবহার করা প্রথম RTCএবং সিএমওএস র্যাম চিপ। সাধারনত চিপ মোট 64 বাইট তথ্য সংরক্ষণ করতে সক্ষম । যখন সিস্টেম ঘড়ি ১৪ বাইট ব্যবহার করে র্যামের তখন তা অতিরিক্ত ৩০বাইট জায়গা ছেড়ে দেয় যা ছিল খুবই সাধারণ আইবিএম কম্পিউটারের জন্য। বর্তমানে বেশিরভাগ কম্পিউটারের চিপ হতে সেটিং সরিয়ে তাদেরকে নেয়া হয় সাউথ ব্রিজ অথবা সুপার আই/ও চিপে।

কতক্ষণ সিএমওএস ব্যাটারি কাজ করে?

একটি সিএমওএস ব্যাটারি জীবনকাল প্রায় 10 বছর। এটি কম্পিউটারের ব্যবহার এবং ভিতরের পরিবেশের উপর নির্ভর করে। যখন ব্যাটারি সিস্টেম সেটিংস ব্যর্থ হয় এবং সময় ও তারিখ ঠিক থাকেনা তখন কম্পিউটার বন্ধ থাকে। এটা ততক্ষণ পর্যন্ত বন্ধ থাকে যতক্ষণ না ব্যাটারি পরিবর্তন করা না হয়।

সিস্টেম প্যানেল সংযোগকারী:

Mother-Board-7

অন্যভাবে বলা যায় সম্মুখ প্যানেল সংযোগকারী ।
সিস্টেম প্যানেল সংযোগকারী কিছু সংযোগকারী তার দ্বারা কম্পিউটার এর পাওয়ার বাটন , রিসেট বাটন , এল ই ডি নিয়ন্ত্রণ করে ।

সিস্টেম প্যানেল সংযোগকারী তার ডান পার্শ্বের চিত্রের মত ২ টি তার মাদারবোর্ড এর কোন সিস্টেম এ যুক্ত হবে তা ভিন্ন রং এ দেয়া হয়েছে বোঝার সুবিধার্থে ।

সাদাকালো তার গুলো রোধক তার এবং রঙিন গুলো পাওয়ার সরবরাহকারী তার ।
তার , রং , এবং সংযোগ এগুলো মাদারবোর্ড এবং কম্পিউটার এর বিভিন্নতার উপর নির্ভর করে । কিন্তু প্রায়ই এটা উল্লেখ করা থাকে ।

সিস্টেম প্যানেল সংযোগাকারীসমূহঃ

এইচ ডি ডি ,এল ই ডি(আই ই ডি ,এল ই ডি ) ‘এল ই ডি’ হার্ড ড্রাইভের এক প্রকারের আলো। এই আলো ঝাঁপটা দেয় যখন হার্ডড্রাইভ এ কিছু লেখা হয় বা হার্ডড্রাইভ থেকে কিছু পঠিত হয়।

পাওয়ার ‘এল ই ডি’ ( পি এল ই ডি )
এই আলো কম্পিউটার চালু আছে না বন্ধ আছে তা নির্দেশ করে ।

পাওয়ার এস ডব্লিউ ( পি ডব্লিউ আর এস ডব্লিউ )
এটি পাওয়ার বাটন কে নিয়ন্ত্রনের মাধ্যমে কম্পিউটার চালু বা বন্ধ করে ।
রিসেট এস ডব্লিউ
কম্পিউটারকে পুনরায় চালু করার জন্য রিসেট বাটন কে নিয়ন্ত্রন করে ।

স্পিকারঃ

অভ্যন্তরীন স্পিকারটি কম্পিউটারকে বুট করার সময় বিপ করে ।

বেশিরভাগ কম্পিউটারের মাদারবোর্ড গুলোতে এ সকল তার সরাসরি মাদারবোর্ডের সাথে যুক্ত থাকে। আসুস তেমনই একটি ব্র্যাণ্ড যার মাদারবোর্ডের সাথে এটি কিউ কানেক্টর থাকে। এই কিউ কানেক্টর দিয়ে দূর থেকে মাদারবোর্ডের সিস্টেম প্যানেল কে নিয়ন্ত্রন করা যায়।

কোন দিকে সিস্টেম প্যানেল সংযুক্ত হয় ?

সিস্টেম প্যানেল এর তারগুলো যেকোনো দিকে-ই যুক্ত হতে পারে। ‘এল ই ডি’ এর বিভিন্ন অবস্থানের জন্য তার গুলো যে কোন দিক থেকে সংযুক্ত হতে পারে। বেশিরভাগ মাদারবোর্ড গুলো দেখলেই বোঝা যায় কারণ এতে ‘+’ ও ‘-’ এবং কিছু রঙিন তার ব্যাবহার করা হয়। রঙিন তার গুলো + এ সংযুক্ত হয় আর সাদা বা কাল তার – এ সংযুক্ত হয়।

সিরিয়াল পোর্টঃ

কম্পিউটারে এক ধরনের Asynchronous পোর্ট যা সিরিয়াল ডিভাইস হিসাবে ব্যবহৃত হয় এবং এক মুহূর্তের মধ্যে সঞ্চালন করতে সক্ষম।