One Stop Digital Education Portal
শ্বাসকষ্ট হৃদরোগের অন্যতম লক্ষণ
Price: 0 Post By: ডা. এম শমশের আলী (সিনিয়র কনসালটেন্ট (কার্ডিওলজি) ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল) সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: 06 Monday 2020

শ্বাসকষ্ট এমন এক ধরনের উপসর্গ যাকে আমরা সাধারণভাবে হাঁপানি বলে আখ্যায়িত করে থাকি। শ্বাসকষ্ট নানাবিধ কারণে হতে পারে। তবে কারণ ভেদে শ্বাসকষ্টের ধরন ও তীব্রতার ভিন্নতা হয়ে থাকে।

বয়স্ক ব্যক্তিদের শ্বাসকষ্টের কারণ কী? তা বিশ্লেষণ করলে এভাবে বলা যায় যে, যখন কোনো বয়স্ক ব্যক্তি শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হন তখন আমাদের সমাজে সাধারণ মানুষ প্রথমেই ভেবে থাকেন এটা নিশ্চয়ই হাঁপানি জাতীয় অসুখ। বিশেষ করে যখন একই ধরনের শ্বাসকষ্ট প্রায়ই দেখা দিয়ে থাকে এবং যখন শ্বাসকষ্ট দীর্ঘস্থায়ী হয়। এসব রোগী সাধারণত অ্যাজমার চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ থাকার চেষ্টা করেন। অনেক চিকিৎসকই এসব রোগীকে ইনহেলার জাতীয় মেডিসিন দিয়ে থাকেন। এখানে বলে রাখা ভালো, বাজারে প্রচলিত অধিকাংশ ইনহেলারই শ্বাসকষ্টের উপসর্গ প্রশমন করে এ ধরনের মেডিসিন দ্বারা প্রস্তুত, তার মানে যে কোনো কারণেই শ্বাসকষ্ট হোক না কেন ইনহেলার ব্যবহারে কিছুটা কষ্ট লাগব হবে।

অন্যদিকে বয়স্ক ব্যক্তিদের শ্বাসকষ্টের কারণ অধিকাংশ সময়ে কিন্তু অ্যাজমা হাঁপানি নয়, বিশেষ করে যদি
কারও ৩০-৪০ বছর বয়সের পর দীর্ঘস্থায়ী ঘন ঘন শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়, তবে তার ৯০ শতাংশ কারণ

হিসেবে হৃদরোগকে দায়ী করা যেতে পারে।

হৃদরোগজনিত শ্বাসকষ্ট বোঝার উপায় : মধ্যবয়সের পর প্রথম শ্বাসকষ্ট শুরু হওয়া। শ্বাসকষ্টের সঙ্গে হাত-পা ফুলে যাওয়া বা শরীরে পানি আসা। ডায়াবেটিস রোগীদের শ্বাসকষ্ট হওয়া। পরিশ্রমের সময় শ্বাসকষ্ট হওয়া এবং বিশ্রাম গ্রহণে শ্বাসকষ্ট কমে যাওয়া।

রাতে বিছানায় শুতে গেলে শ্বাসকষ্ট ও কাশির উদ্বেগ হওয়া। মধ্যরাতে শ্বাসকষ্টের জন্য ঘুম ভেঙে যাওয়া।

হার্ট অ্যাটাকের পরবর্তী সময়ে শ্বাসকষ্ট হওয়া।

অনেক দিন থেকে উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যায় ভুগছেন এমন ব্যক্তিদের শ্বাসকষ্ট হওয়া। বাইপাস অপারেশন এর পর শ্বাসকষ্ট হওয়া। হার্টে রিং পরার পর শ্বাসকষ্ট হওয়া। হার্টের ভাল্বের সমস্যা আছে এমন রোগীদের শ্বাসকষ্ট হওয়া। শ্বাসকষ্টের সঙ্গে বুকে ব্যথা হওয়া।

দীর্ঘ সময় ধরে যে কোনোরূপ হার্টের অসুস্থতায় ভুগছেন এমন রোগীর শ্বাসকষ্ট দেখা দেওয়া। ইনহেলার ব্যবহার করে এবং অ্যাজমার চিকিৎসা গ্রহণের পরেও শ্বাসকষ্ট আরোগ্য না হওয়া। শ্বাসকষ্ট দীর্ঘস্থায়ীভাবে বিদ্যমান থাকা। বুক ধড়ফড়ের সঙ্গে শ্বাসকষ্ট হওয়া। যদি এসব লক্ষণ পরিলক্ষিত হয়, তবে মনে রাখতে হবে যে আপনার হৃদরোগ অনেক জটিল আকার ধারণ করেছে এবং এর জন্য আপনাকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সঠিক চিকিৎসা গ্রহণ করা বাঞ্ছনীয়। যদি কখনো পূর্ণ বয়স্ক ব্যক্তির হঠাৎ শ্বাসকষ্ট শুরু হয় এবং শ্বাসকষ্টের সঙ্গে বুকের ভিতর চাপ বা ব্যথা অনুভূত হয়, শরীর অত্যধিক ঘেমে যায়, তবে বুঝতে হবে যে এটা হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ। এ ক্ষেত্রে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব হাসপাতালে যেতে হবে, তা না হলে জীবন বিপন্ন হতে পারে। শ্বাসকষ্ট হৃদরোগের একটি মারাত্মক লক্ষণ, কাজেই সব ধরনের শ্বাসকষ্টকে অ্যাজমা বা হাঁপানি মনে করে টোটকা চিকিৎসা আপনার জটিলতা বৃদ্ধি করবে। যথা সময়ে হৃদরোগের সঠিক চিকিৎসায় আপনার শ্বাসকষ্ট দ্রুত লাঘব হবে এবং আপনার হৃদরোগজনিত জটিলতা দূরীভূত করবে। হৃদরোগের লক্ষণসমূহের মধ্যে বুকে ব্যথা বা চাপ অনুভূত হওয়া, শ্বাসকষ্ট হওয়া এবং বুক ধড়ফড় করা অন্যতম লক্ষণ। প্রাথমিক অবস্থায় হৃদরোগীদের শ্বাসকষ্ট নাও হতে পারে, রোগের প্রকোপ বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে রোগীর শ্বাসকষ্ট বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। তাই শ্বাসকষ্ট নিয়ে আরও সতর্ক হতে হবে।